Header Ads

  • Breaking News

    রাজৈরে চারজনকে কুপিয়ে আহত, আটক ১


    মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার সাতবাড়িয়া গ্রামে রবিবার রাতে ঘরে গিয়ে একই পরিবারের তিনজনসহ চারজনকে কুপিয়ে আহত করেছে হেজবুল মাতুব্বর (৩০) নামের এক যুবক। সে একই এলাকার মৃত রহম মাতুব্বরের ছেলে। পুলিশ রবিবার রাতেই হেজবুলকে আটক করেছে। এ ব্যাপারে রাজৈর থানায় মামলা হয়েছে।
    স্থানীয়, আহত, পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে রাজৈর উপজেলার সাতবাড়িয়া গ্রামের হেজবুল মাতুব্বরের সঙ্গে তার স্ত্রী তুলি বেগমের মধ্যে বিরোধ চলছিলো। হেজবুল সেই বিরোধ মীমাংসার জন্য স্ত্রী তুলিকে নিয়ে রবিবার বিকেলে একই গ্রামে তার বড় বোন আছমা বেগমের বাড়িতে যায়। রাতে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে হেজবুল তার স্ত্রীকে মারপিট শুরু করে। এ সময় ভাগ্নে মাহাবুল খন্দকার বাধা দিতে গেলে তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে সে।
    এ সময় তাদের চিৎকার শুনে ভাগ্নে মাহাবুলের চাচাতো ভাই পলাশ খন্দকার ও তার স্ত্রী বেবী বেগম এগিয়ে আসলে তাদেরও এলোপাতাড়ি  কোপাতে থাকে। পরে প্রতিবেশী শওকত শেখের ছেলে এনামুল শেখ এগিয়ে আসলে হেজবুল তাকেও কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।  আহতদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা আহত মাহাবুল খন্দকার, পলাশ খন্দকার, তার স্ত্রী বেবী বেগম এবং এনামুল শেখকে উদ্ধার করে প্রথমে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে অবস্থার  অবনতি হলে রাতেই চারজনকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
    রাজৈর থানার ওসি জিয়াউল মোর্শেদ বলেন, "এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে। অভিযুক্তকে রাতেই আটক করা হয়েছে। মামলার তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে। " 

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad