Header Ads

  • Breaking News

    শেরপুরে সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনার দাবিতে মানববন্ধন

    'ময়লা- বর্জ্য সরিয়ে নাও, শ্বাস নিয়ে বাচঁতে দাও'- এ  স্লোগানকে সামনে রেখে আমনকুড়া বিলে ময়লা ফেলা বন্ধসহ শেরপুর পৌর শহরের পরিবেশ উন্নয়নে সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনার দাবিতে মানববন্ধন করেছে জনউদ্যোগ নামের একটি নাগরিক সংগঠন।
    আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ইনস্টিটিউট ফর এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের  (আইইডি) সহায়তায় গৃর্দানারায়ণপুর আমনকুড়া বিলের ময়লার ভাগারের সামনের রাস্তায় এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
    জনউদ্যোগের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় শেরপুর সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের সহকারী অধ্যাপক শিব শংকর কারুয়া, উদীচী সভাপতি তপন সারোয়ার, মহিলা পরিষদ সভাপতি জয়শ্রী দাস লক্ষ্মী, শেরপুর কলেজ শিক্ষক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক শওকত হোসেন, বাংলার মুখ সভাপতি সাইফুল আলম শাহীন, জনউদ্যোগের সদস্য সচিব সাংবাদিক হাকিম বাবুল, কমিউনিস্ট পার্টির সদর উপজেলা শাখার সভাপতি সোলাইমান আহাম্মেদ, নারী নেত্রী আঞ্জুমআরা যুথী, ব্যাংকার আনিসুর রহমান লিখন প্রমুখ বক্তব্য দেন। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার শতাধিক মানুষ অংশগ্রহণ করেন।
    বক্তারা বলেন, শহরের প্রবেশমুখে গৃর্দানারায়ণপুর আমনকুড়া বিলের ময়লার ভাগাড়ে পঁচা দুর্গন্ধ এলাকার প্রাকৃতিক পরিবেশকে দূষিত করছে। ফিডার সড়কের পাশে এ ময়লার ভাগাড়টি নষ্ট করছে শহরের নান্দনিকতা। রাস্তায় চলাচলকারীকে নাকে-মুখে রুমাল দিয়ে চলাচল করতে হয়। অবিলম্বে শহরের পরিবেশ উন্নয়নে এ ময়লার ভাগাড়টি শহরের বাইরে অন্যত্র স্থানান্তর করা প্রয়োজন। সেইসঙ্গে সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে শেরপুরকে মডেল শহরে উন্নীত করার জন্য পৌর কর্তৃপক্ষ ও জেলা প্রশাসনকে অনুরোধ জানান বক্তারা।
    এ ব্যাপারে পৌর মেয়র গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন বলেন, "ইউজিআইআইপি প্রকল্পে আওতায় শহরের অষ্টমীতলায় একটি ময়লা ডাম্পিং স্টেশন নির্মাণ করা হবে। এ জন্য জমি অধিগ্রহণে প্রকল্পের পক্ষ থেকে ছয় কোটি টাকা জেলা প্রশাসনের নিকট জমা দেওয়া হয়েছে। সেখানে মৃগী নদীর তীরে বাঁধ ও গাইড ওয়াল নির্মাণ করে ময়লার ডাম্পিং স্টেশন নির্মাণ হলেই গৃর্দানারায়ণপুরে আর ময়লা ফেলা হবে না। " 

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad