Header Ads

  • Breaking News

    নিজ শিশুসন্তানকে হত্যার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে!

    দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ছয় বছরের মেয়েকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে মায়ের বিরুদ্ধে। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বেলাইচণ্ডী ইউনিয়নের হরিরামপুর ভাটিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশুটির নাম মাইমুনা। পুলিশ তার মা সাবিয়া আকতারকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে।
    পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের এরশাদ আলী ঢাকায় চাকরি করেন। স্ত্রী সাবিয়া আকতার মেয়ে মাইমুনাকে নিয়ে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন।
    শিশুটির দাদি রেজিয়া বেগম জানান, নফল রোজা রাখার জন্য সাহ্‌রি খাওয়ার সময় উঠে তিনি পুত্রবধূ সাবিয়াকে ডাকতে যান। ঘরে ঢুকে দেখেন মাইমুনা রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। পাশে পড়ে আছেন সাবিয়া। চিৎকারে বাড়ির লোকজন উঠে দেখে মাইমুনা বেঁচে নেই। সাবিয়া অচেতন।
    সাবিয়াকে উদ্ধার করে পার্বতীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তিনি পুলিশি পাহারায় আছেন।
    পরিবারের লোকজন জানান, সাত বছর আগে বেলাইচণ্ডী ইউনিয়নের ভাটিপাড়া গ্রামের জবেদ আলীর ছেলের সঙ্গে মন্মথপুর ইউনিয়নের দেউল সরদারপাড়া গ্রামের আবদুল হামিদ সরকারের মেয়ের সঙ্গে বিয়ে হয়। সংসারে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া হতো মাঝেমধ্যে।
    থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ জানান, শিশুটির চাচা ইব্রাহিম আলী হত্যা মামলা করেছেন। হত্যার অভিযোগে সাবিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি হাসপাতালে আছেন। পরবর্তী সময়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।
    মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এবং পার্বতীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুর রহিম বলেন, পারিবারিক কলহের কারণে এই হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে সন্দেহ করা হচ্ছে। 

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad