Header Ads

  • Breaking News

    কোরবানির ঈদে লবণ ঘাটতির আশঙ্কা ব্যবসায়ীদের

    daily-sangbad-pratidin-salt1.jpg

    দেশে লবণের ঘটতি মেটাতে সরকার বিদেশ থেকে ৫ লাখ টন লবণ আমদানির ঘোষণা দিয়েছে। তবে নানা জটিলতার কারণে এখনও এলসি-ই খুলতে পারেননি ব্যবসায়ীরা। যে কারণে কোরবানির ঈদে চামড়া প্রক্রিয়াজাত করার জন্য লবণের ঘটতি দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এদিকে অস্তিত্বহীন, বন্ধ ও অচল মিলের নামে লবণ আমদানির বরাদ্দ পেতে একটি সিন্ডিকেট মন্ত্রণালয়ে তদবিরে নেমেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
    ব্যবসায়ীরা বলছেন, ‘কোরবানির ঈদের আর মাত্র বাকি আছে ২৫ থেকে ২৬ দিন। এই সময়ের মধ্যে মিলের অনুকূলে বরাদ্দপত্র দিলেও ঈদের আগে লবণ দেশে আসবে কি না তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। কারণ চট্টগ্রামে পোর্টে পণ্য খালাস নিয়ে বেশ জটিলতা রয়েছে।’
    প্রসঙ্গত, বৈরি আবহাওয়ার কারণে এবার কক্সবাজার, মহেশখালী, চকরিয়া, খুটাখালিসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় লবণ উৎপাদন কম হয়েছে। বিসিকের তথ্য অনুযায়ী দেশে অপরিশোধিত লবণের প্রয়োজন ২২ লাখ মেট্রিক টন। কিন্তু উৎপাদন হয়েছে (ক্রুড) ১৩ লাখ মেট্রিক টন। সে হিসাবে পরিশোধিত লবণের ঘাটতি রয়েছে ৫ লাখ টন। ঘাটতি মেটাতেই সরকার ৫ লাখ টন লবণ আমদানির সিদ্ধান্ত নেয়।
    daily-sangbad-pratidin-salt12.jpg

    এর আগে, গত ১৬ জুলাই শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনে ক্ষুদ্র-কুটির শিল্প (বিসিক) ও বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ নিবন্ধিত সচল মিল মালিকদের লবণ আমদানির আবেদন করার জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের চাহিদাপত্র অনুযায়ী সচল এবং বর্তমান মৌসুমে লবণ উৎপাদনে আছে এমন মিলের তালিকা করে শিল্প মন্ত্রণালয়ে পাঠায় বিসিক।
    বিসিকের প্রকল্প পরিচালক মো. সফিকুল ইমলাম বলেন, ‘বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের চাহিদাপত্র অনুযায়ী যেসব লবনের মিল গত ছয়মাস ধরে উৎপাদনে রয়েছে এমন ১৯৩টি মিলের তালিকা করে বিসিকের চেয়ারম্যান অতিরিক্ত সচিব মোস্তাক হাসান ইফতেখার স্বাক্ষরিত একটি তালিকা শিল্প মন্ত্রণালয়ে বিশ দিন আগেই পাঠানো হয়েছে।’ বিসিকের তালিকার বাইরে নতুন কোনও মিলের নাম সংযোজন করা হয়েছে কি না, এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘তা আমার জানা নেই।’
    নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জের সুপার ক্রিসেন্ট লবণ মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ মো. অলিউল্লাহ জানান, জুন মাস থেকে আগস্ট মাস পর্যন্ত সময়ক্ষেপণ হচ্ছে। আগস্টের ৭ তারিখ চলে যাচ্ছে এখন পর্যন্ত ব্যবসায়ীরা এলসি ওপেন করতে পারেননি। কবে নাগাদ এলসি খুলতে পারবে সেই তারিখও নির্ধারণ হয়নি।
    তিনি বলেন, ‘পাশ্ববর্তী দেশ ভারত থেকে লবণ আমদানি করে সেই লবণ প্রক্রিয়াজাত করে বাজারে আসতে প্রায় এক মাস সময় লাগবে। সুতরাং কোরবানির ঈদের আগে আমদানিকৃত লবণ বাজারে আসা কঠিন হবে।’ এ বছর যাতে অস্তিত্বহীন মিল আমদানির বরাদ্দ না পায় সে ব্যাপারে মন্ত্রণালয়কে সর্তক থাকার আহ্বান জানান তিনি।
    daily-sangbad-pratidin-salt3.jpg

    বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতির সাবেক সভাপতি পরিতোষ কান্তি সাহা বলেন, ‘লবণের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আমরা চিন্তিত। আমদানির প্রক্রিয়াটি অনেক দেরি হয়ে গেছে। বর্তমানে চট্টগ্রাম পোর্টের যে অবস্থা, একটি মাদার ভেসেল এলে পরে একটি করে লাইটার জাহাজ দিয়ে পণ্য খালাস করা হয়। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে লবণকে সর্বোচ্চ প্রধান্য দিয়ে পণ্য খালাস করতে সরকারকে নজর দিতে হবে।’
    কক্সবাজারের ইসলামপুর লবণ মিল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সামসুল আলম আজাদ বিসিকের তালিকা অনুযায়ী বিদেশ থেকে লবণ আমদানির বরাদ্দপত্র দেওয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, ‘সরকারকে লবণ নিয়ে বেকায়দায় ফেলার জন্য একটি চক্র কাজ করছে। এ জন্য বিসিক ও শিল্প মন্ত্রণালয়কে গুরুত্বসহকারে বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে।’
    নারায়ণগঞ্জের নিতাইগঞ্জের সুপার সল্ট ইন্ড্রাস্ট্রিজের স্বত্বাধিকারি কমল সাহা বলেন, ‘লবণ আমদানির বিষয়টি কাগজেই সীমাবদ্ধ। এখনও গেজেট প্রকাশিত হয়নি। বিসিক ও মন্ত্রণালয়ের গাফিলতির কারণেই সময় লাগছে বেশি।’ এসময় তিনি দ্রুত লবণ আমদানি করে কোরবানির ঈদে চামড়া শিল্পকে বাঁচাতে সরকারের প্রতি দাবি জানান।

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad