Header Ads

  • Breaking News

    পৃথিবী ধ্বংস হয়ে গেলেও জীবিত থাকবে এটি!

    টার্ডিগ্রেডস
    পরিস্থিতির পরিবর্তন হলেই মানুষের অস্তিত্বের ওপর বিপদ দেখা যায়। সেটা গ্লোবাল ওয়ার্মিং বা বাতাসে অক্সিজেনের অভাবও হতে পারে। কিন্তু পৃথিবীতে একটি ছোট জীব রয়েছে যার কঠিন পরিস্থিতিতেও বেঁচে থাকা ক্ষমতা আছে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা গবেষণার পর বলেছেন, পৃথিবীতে যখন মানুষের সাথে সমস্ত উদ্ভিদ ও প্রাণীর অস্তিত্ব শেষ হয়ে যাবে তথনও এই ক্ষুদ্র জীবের অস্তিত্ব থাকবে। 

    টার্ডিগ্রেডস
    এই প্রাণীটির নাম হলো টার্ডিগ্রেডস। এটাকে ওয়াটার বিয়ার, স্পেস বিয়ার এবং মস পিগলেটসও বলা হয়। এই ধরনের প্রাণী থাকে জলে। আকৃতি খুবই ছোট সেজন্য এটাকে মাইক্রো অ্যানিমেল বলা হয়। এর আকার মাত্র অর্ধ মিলিমিটার। এই প্রাণীটিকে দেখার জন্য অণুবীক্ষণ যন্ত্রের প্রয়োজন হয়।
    এই প্রাণীটিকে দেখার জন্য অণুবীক্ষণ যন্ত্রের প্রয়োজন হয়।
    অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষকরা গবেষণা করে পেয়েছেন, টার্ডিগ্রেডস কঠিন পরিস্থিতিতেও বেঁচে থাকতে পারে। বায়ু এবং খাদ্য ছাড়া ৩০ বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। তাছাড়া, ১৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় বেঁচে থাকতে পারে। অর্থাৎ পৃথিবীর তাপমাত্রা যত বৃদ্ধি পেতে থাকবে সমস্ত প্রাণী ও উদ্ভিদ বিলুপ্ত হয়ে গেলেও টার্ডিগ্রেডসের অস্তিত্ব শেষ পর্যন্ত থাকবে।
    টার্ডিগ্রেডস
    আট পায়ের এই জীবের গড় আয়ু ৬০ বছর। টার্ডিগ্রেডসের অনুসন্ধান করেছেন জার্মান জুলজিস্ট জন আগস্ট এফ্রেম গোএজ ১৭৭৩ সালে। বিজ্ঞানীদের মতে পৃথিবী সাধারণ পরিস্থিতিতে যখন এই জীব থাকতে পারে তবে কঠিন পরিস্থিতিতেও এই প্রাণী বেঁচে থাকতে পারে। তবে চাঁদ এবং মঙ্গলেও গ্রহের পরিস্থিতিতেও এই ধরনের প্রাণী থাকতে পারে। সুত্র ঃ ইন্টারনেট

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad