Header Ads

  • Breaking News

    সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন

    Daily_Sangbad_Pratidin_stock_exchange.jpg
    সপ্তাহের পঞ্চম ও শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সূচক বেড়েছে। তবে উভয় বাজারেই কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

    এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে ২৯ পয়েন্ট। আর লেনদেন কমেছে ৯৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।

    সিএসইতে সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স বেড়েছে ৫০ পয়েন্ট। আর লেনদেন কমেছে ২৩ কোটি ৭১ লাখ টাকা।

    বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, বৃহস্পতিবার ডিএসইতে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স’র ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন শুরু হয়। যা দিনের শেষ পর্যন্ত অব্যহত থাকে। ফলে সূচকের বড় উত্থানেই লেনদেন শেষ হয়। লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২৯ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৮৮৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

    প্রধান মূল্য সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে অপর দুটি মূল্য সূচক। এর মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১১১ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিহ সূচক আগের দিনের তুলনায় ১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩০৫ পয়েন্টে।

    এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭৮২ কোটি ১০ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৮৭৬ কোটি ৪৭ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ৯৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ১৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। অপরদিকে কমেছে ১৩৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির দাম।

    টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমের শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৪৬ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ৩৪ কোটি ৯১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৩১ কোটি ২৫ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিবিএস ক্যাবলস।

    চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সিএসসিএক্স সূচক ৫০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৩৫ পয়েন্টে। লেনদেন হয়েছে ৪৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৬১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে ১১০টির দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। অপরদিকে কমেছে ১০৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৬টির দাম।

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad