Header Ads

  • Breaking News

    পোশাক রফতানিতে দ্বিতীয় অবস্থানেই বাংলাদেশ

    Daily-sangbad-pratidin-clothing-export

    একক দেশ হিসেবে ২০১৬ সালে বাংলাদেশ বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পোশাক রফতানিকারক দেশ হিসেবে তার অবস্থান ধরে রেখেছে।
    তৈরি পোশাক রফতানিতে গত বছর বিশ্বের শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে বাংলাদেশ। এক্ষেত্রে চীন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), ভিয়েতনাম, ভারত, হংকংয়ের মতো দেশকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ। তবে শীর্ষ ১০ দেশের অন্যতম কম্বোডিয়াও এ সময়ে ৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে।
    গত শুক্রবার প্রকাশিত বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) ‘ওয়ার্ল্ড ট্রেড স্ট্যাটেসটিকস রিভিউ ২০১৭’ প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।
    ই প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৬ সালে বাংলাদেশ মোট ২ হাজার ৮০০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের তৈরি পোশাক রফতানি করে। এক্ষেত্রে একক দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পোশাক রফতানিকারক দেশ। তবে ইইউ জোট হিসাবে নিলে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয়। সব মিলিয়ে গত বছর বিশ্বের মোট রফতানিকৃত পোশাকের ৬ দশমিক ৪ শতাংশ বাংলাদেশের।
    ডব্লিউটিওর প্রতিবেদন অনুযায়ী, পোশাক রফতানিতে এবারও শীর্ষ অবস্থানে আছে চীন। বিশ্বের মোট পোশাক রফতানির ৩৬ দশমিক ৪ শতাংশই রয়েছে চীনের দখলে। সার্বিকভাবে চীনের পরে রয়েছে ২৮ দেশের জোট ইইউ, তাদের প্রবৃদ্ধি ৪ শতাংশ। এরপর বাংলাদেশের অবস্থান।
    বাংলাদেশের পরে সেরা দশে পোশাক রফতানিতে রয়েছে যথাক্রমে ভারত, হংকং, তুরস্ক, ইন্দোনেশিয়া, কম্বোডিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। ডব্লিউটিওর হিসাবে বিশ্বের মোট পোশাক রফতানির চার ভাগের তিন ভাগই এই ১০টি দেশের দখলে।

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad