Header Ads

Surfe.be - Banner advertising service
  • Breaking News

    লুইস ঝড়ে বিধ্বস্ত ভারত


    ব্রায়ান লারার দেশের ক্রিকেটার তিনি। তবে হতে চেয়েছেন ক্রিস গেইলের মতো বিধ্বংসী। সেই গেইলকেও ম্লান করে স্যাবাইনা পার্কে নতুন ইতিহাস গড়লেন এভিন লুইস। ৬২ বলে ৬ বাউন্ডারি ১২ ছক্কায় হার না মানা ১২৫ রানের ঝড়ে বিধ্বস্তই করেছেন ভারতকে। সিরিজের একমাত্র টি-টোয়েন্টিতে ভারতের ১৯০ রানের বড় চ্যালেঞ্জ লুইসের কাঁধে চড়ে ৯ বল হাতে রেখে পেরিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওয়ানডে সিরিজে পাত্তা না পেলেও তারা যে টি-টোয়েন্টির বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, ৯ উইকেটের জয়ে আরো একবার বুঝিয়ে দিল ক্যারিবীয়রা। ধীরগতির ওভার রেটের জন্য অবশ্য অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েটের ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ ও অন্য খেলোয়াড়দের জরিমানা করা হয়েছে ১০ শতাংশ।
    ১৫ মাস পর ক্রিস গেইল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছেন স্যাবাইনা পার্কে। ফেরাটা বিবর্ণই হয়েছে।
    ২০ বলে করেছেন মাত্র ১৮ রান। তাঁর ব্যর্থতাটা বড় হয়ে ওঠেনি লুইসের বিস্ফোরক ইনিংসে। ওয়ানডে সিরিজে তেমন কিছু করতে না পারা এই তরুণ ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি পেলেন গত পরশু। প্রথম সেঞ্চুরিটিও করেছিলেন ভারতের বিপক্ষে। ১৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে ফিফটি একটি থাকলেও সেঞ্চুরি হয়ে গেল দুটি! বাউন্ডারির চেয়ে বেশি পছন্দ ছক্কায়। এ জন্যই হয়তো টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে চার ২০টি আর ছক্কা ৩৭টি! গত পরশুর ১২টি ছক্কা টি-টোয়েন্টির এক ইনিংসে তৃতীয় সর্বোচ্চ। সবচেয়ে বেশি ১৪ ছক্কার কীর্তি অ্যারন ফিঞ্চের। লুইসের ১২৫ রানের ইনিংস যেমন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সেরা, তেমনি রান তাড়া করতে নেমে এই ফরম্যাটে সর্বোচ্চ। ২৯ বলে ৫ বাউন্ডারি ১ ছক্কায় ৩৬* করে লুইসকে কেবল সঙ্গ দিয়ে গেছেন মারলন স্যামুয়েলস। অথচ লুইসের ফিফটির আগে পর পর দুটি ক্যাচ না পড়লে অন্য রকম হতে পারত ম্যাচের গল্প। এ জন্যই ক্ষুব্ধ বিরাট কোহলি, ‘যেভাবে শুরু করেছিলাম তাতে ২৩০ রান করা উচিত ছিল। বোলিং যাচ্ছেতাই হয়েছে। লুইসের দুটি ক্যাচ ফেলা মানা যায় না কোনোভাবে। এভাবে খেললে আমাদের জেতার অধিকার নেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ কয়েক বছর ধরে এই দলটা ধরে রাখায় টি-টোয়েন্টিতে সফল। আর আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্যে আছি। এটা মেনে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। ’
    এদিকে শ্রীলঙ্কা সফরে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে ভারত। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সবশেষ খেলা সিরিজের দলটা অপরিবর্তিত আছে একপ্রকার। চোট কাটিয়ে ফিরেছেন লোকেশ রাহুল, মুরালি বিজয়, রোহিত শর্মা ও অভিনব মুকুন্দ। বাদ পড়েছেন করুণ নায়ার ও শিখর ধাওয়ান। অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডের সুযোগ পাওয়াটাও তাৎপর্যের। এই সিরিজে তিনটি টেস্টের পর, পাঁচ ওয়ানডে ও একটি টি-টোয়েন্টি খেলবে দুই দল। প্রথম টেস্ট গলে মাঠে গড়াবে ২৬ জুলাই। ক্রিকইনফো

    সংক্ষিপ্ত স্কোর
    ভারত : ২০ ওভারে ১৯০/৬ (কার্তিক ৪৮, কোহলি ৩৯, পান্ট ৩৮, ধাওয়ান ২৩; টেলর ২/৩১, উইলিয়ামস ২/৪২)। হ
    ওয়েস্ট ইন্ডিজ : ১৮.৩ ওভারে ১৯৪/১ (লুইস ১২৫*, স্যামুয়েলস ৩৬*, গেইল ১৮; কুলদীপ ১/৩৪, অশ্বিন ০/৩৯)।
    ফল : ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৯ উইকেটে জয়ী।
    ম্যান অব দ্য ম্যাচ : এভিন লুইস।

    ৬২ বলে ১২৫*
    ►        এভিন লুইসের অপরাজিত ১২৫ ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ।
    ►        রান তাড়া করে লুইসের ১২৫* এই ফরম্যাটে সবচেয়ে বেশি রানের ইনিংস।
    ►        টি-টোয়েন্টিতে দুটি সেঞ্চুরি কেবল তিনজনের। ক্রিস গেইল, ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ও লুইসের।
    ►        লুইসের ১২ ছক্কা টি-টোয়েন্টিতে এক ইনিংসে তৃতীয় সর্বোচ্চ।

    No comments

    Post Top Ad

    Surfe.be - Banner advertising service

    Post Bottom Ad