Header Ads

  • Breaking News

    মূর্তিটি রণবীরের না অন্য কারও?

    ফ্রান্সের ‘গ্রেভিন মিউজিয়াম’-এ স্থাপিত রণবীর সিংয়ের মোমের মূর্তি
    বলিউড অভিনেতা রণবীর সিংয়ের ৩২তম জন্মদিন ছিল গত বৃহস্পতিবার। জন্মদিনে ফ্রান্সের গ্রেভিন মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তাঁর পাওয়ার কথা ছিল এক ‘রাজকীয়’ উপহার। উপহার তিনি পেয়েছেনও।
    গ্রেভিন মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ রণবীরের জন্মদিনে তাঁর মোমের তৈরি মূর্তি উন্মোচন করেন। তবে, এটি প্রকাশের আগে রণবীর যতটা উচ্ছ্বসিত ছিলেন, এখনো ততটা আছেন কি না সন্দেহ আছে। কারণ, গ্রেভিন কর্তৃপক্ষ বানানো এই মূর্তি দেখতে রণবীরের থেকে অনেক বয়স্ক। এদিকে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই তারকার ভক্তরা মূর্তির ছবি দেখার পর ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। অনেকে আবার বলছেন, এটি রণবীরের চেয়ে বলিউডের কোরিওগ্রাফার শিমাক দেভারের মতো দেখতে।
    রণবীরের ভক্তদের মতে মূর্তিটি শিমাক দেভারের মতো দেখতে
    ফ্রান্সের সঙ্গে রণবীর সিংয়ের সম্পর্ক তৈরি হয় ‘বেফিকরে’-এর শুটিংয়ের সময়। আদিত্য চোপড়া পরিচালিত এই ছবির পুরো শুটিং হয়েছে ফ্রান্সে। ছবির শুটিং করতে গিয়েই প্যারিসের প্রেমে পড়ে যান রণবীর। ‘বেফিকরে’ ছবির প্রদর্শনীর দিন ভাস্কর এরিক সেন্ট ক্যাফরে ও গ্রেভিনের শিল্পীর দল এই বলিউড তারকার সঙ্গে দেখা করে। রণবীরের কাছ থেকে তাঁরা তাঁদের প্রয়োজনীয় সব তথ্য সংগ্রহ করেন। এই বৈঠকটি হয় পুলম্যান ট্যুর আইফেল হোটেলে। বলিউড অভিনেতার ত্বক, চুল, চোখ, সবকিছুই তাঁরা পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে রেকর্ড করেন, যাতে কোনো ফাঁকফোকর না থেকে যায়। এমনকি মূর্তিকে পরানোর জন্য রণবীর তাঁর পরনের কাপড় মুম্বাই থেকে গ্রেভিনে পর্যন্ত পাঠিয়েছিলেন।
    কিন্তু এত কিছু করেও কী লাভ হলো? মূর্তি দেখে তো বোঝাই যাচ্ছে না যে এটি রণবীরের।
    বলিউডের বিখ্যাত কোরিওগ্রাফার শিমাক দেভার
    প্যারিসের ১৩৫ বছরের ঐতিহ্যবাহী গ্রেভিন মিউজিয়ামে সারা বিশ্বের দুই শতাধিক ব্যক্তির মোমের মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে। এর আগে ভারতীয় তারকাদের মধ্যে শাহরুখ খান ও ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের মোমের মূর্তি এখানে স্থাপন করা হয়।
    জন্মদিনের আগে রণবীর বলেছিলেন, ‘সত্যি এটা আমার জন্মদিনের বিশেষ উপহার। আর এই সুন্দর স্মৃতির জন্য আমাকে বারবার প্যারিসে ফিরে আসতে হবে। আমি প্যারিসকে ভালোবাসি। ফরাসিদের সবকিছুই আমার দুর্দান্ত লাগে। গ্রেভিন মিউজিয়ামের কাছে আমি কৃতজ্ঞ যে তারা এই মোমের মূর্তির মাধ্যমে আমাকে তাদের বাড়িতে তথা হৃদয়ে স্থান দিয়েছে।’
    আর ‘বাজিরাও মাস্তানি’ তারকার ভক্তরা বলছেন, এটি সম্ভবত জন্মদিনে পাওয়া রণবীর সিংয়ের সবচেয়ে বাজে উপহার।

    No comments

    Post Top Ad

    ad728

    Post Bottom Ad